Advertise with ShineMat.com at low cost.
সর্বশেষ আপডেট গুলো:

জেনে নাও বিশ্ববিদ্যালয়ে এডমিশন টেস্টের সাধারণ জ্ঞান সম্পর্কে টুকিটাকি

বিশ্ববিদ্যালয়ে এডমিশন টেস্টে সাধারণ জ্ঞান এর মার্কস টা সবচেয়ে বেশি থাকে। আর সাধারণ জ্ঞানের সিলেবাস টাও থাকে বিশাল। অনেকে সাধারণ জ্ঞান বিশাল বলে পড়তে চায় না, আর সাধারণ জ্ঞান টা মনে রাখাও অনেক কঠিন। কিন্তু এই বিশাল সিলেবাস টা দেখে ভয় পাবার কারণ নেই। আর সাধারণ জ্ঞান টা পড়তে হবে প্রচুর পরিমানে। ভয় পেলে চলবে না, মনে না থাকলে একটি জিনিস বার বার পড়বে। আর সাধারণ জ্ঞানের কিছু জিনিস একটু জোর করে পড়তেই হবে। আমি আজ এই কয়েকটি জিনিস নিয়ে তোমাদের সাথে আলোচনা করবো।


বিশ্ববিদ্যালয়ে এডমিশন টেস্টের সাধারণ জ্ঞান সম্পর্কে টুকিটাকি

সাধারণ জ্ঞানের সকল জিনিসই ভালোমতো পড়া উচিত। যে কয়েকটি জিনিস একটু জোর দিয়ে পড়বে সেগুলা হল:

বাংলাদেশ বিষয়াবলি গুলো হল...

১. বিগত সালের প্রশ্ন গুলো ভালোমতো পড়তে হবে। দরকার হলে মুখস্ত করে নিবে। কারণ বিগত সালের প্রশ্ন থেকে অনেক প্রশ্নই কমন পড়ে।

২. বাংলাদেশের ইতিহাস, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে ভালোমতো পড়তে হবে। বিশেষ করে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন বিষয় যেমন অস্থায়ী সরকার, বুদ্ধিজীবী হত্যা, ১১ টি সেক্টর (ভালো ভাবে মুখস্ত করতে হবে), বাংলাদেশকে স্বীকৃতিদানকারী দেশ, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চলচ্চিত্র, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গ্রন্থ, স্থাপত্য, গান, ভাস্কর্য, ইত্যাদি।

৩. বাংলাদেশের বিখ্যাত উক্তি সমূহ।

৪. বাংলাদেশের বিভাগ ও জেলা গুলোর পরিচিতি।

৫. জাতীয় বিষয়াবলি।

৬. বাংলাদেশের ভূ-প্রকৃতি ও সীমানার মধ্যে পাহাড়, সমুদ্রসীমা, ছিটমহল, সীমান্ত, আবহাওয়া, এই বিষয়গুলা ভালো মত পড়তে হবে।

৭. রাজধানী ঢাকার ইতিহাস।

৮. বাংলাদেশের নদ নদীর উৎপত্তিস্থল, গুরুত্বপূর্ণ নদী, নদীর পূর্ব নাম, ভালোমতো পড়তে হবে।

৯. বাংলাদেশের সংবিধান। এটা খুবই জরুরি।

১০. বাংলাদেশের সরকার, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রণালয় সমূহ।

১১. সরকার ব্যবস্থা।

১২. বিভিন্ন কমিশন।

১৩. বাংলাদেশের অর্থনীতি।

১৪. বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

১৫. শিল্প ও বাণিজ্য।

১৬. শিল্প ও সাহিত্য।

১৭. বাংলাদেশের বৃহত্তম, ক্ষুদ্রতম বিষয়গুলো।

১৮. বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গের সকল কিছু।

১৯. আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ স্থান ও মর্যাদা।

২০. বাংলাদেশে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া আপডেট তথ্য।

২১. জাতি উপজাতি।

২২. স্থাপত্য সমূহ।

২৩. চিত্রকর্ম।

২৪. বিখ্যাত কবিদের নাম এবং তাদের কাজ সমূহ।


আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি গুলো হল...

১. পৃথিবীর পরিচয়।

২. ৭ টি মহাদেশর সকল তথ্য।

৩. একেক টা মহাদেশের রাজধানী, ভাষা, মুদ্রার নাম।

৪. সাগর, মহাসাগর।

৫. প্রণালী।

৬. আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বিখ্যাত ব্যক্তিদের নাম ও উপাধি।

৭. নারী বিশ্ব।

৮. প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ।

৯. বিভিন্ন বিপ্লব।

১০. কয়েকটি আলোচিত অপারেশন।

১১. চুক্তি সমূহ।

১২. জাতিসংঘ এবং এর বিভিন্ন সংস্থা।

১৩. আন্তর্জাতিক সংস্থা ও জোট।

১৪. বিশ্বের গণমাধ্যম।

১৫. আন্তর্জাতিক দিবস সমুহ।

১৬. জাতি ও উপজাতি।

১৭. বিভিন্ন সভ্যতা।

১৮. বিভিন্ন ধর্ম।

১৯. বিশ্বের বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

২০. বিভিন্ন পরিবেশ ও প্রাকৃতিক দুর্যোগসমূহ।

২১. বিখ্যাত চিত্রকর্ম, চিত্রকপ্র এবং বইয়ের নাম।

২২. বিভিন্ন পুরস্কার ও খেলা।

বিশেষ দ্রষ্ট্রব্য: ঢাবির পরিক্ষার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস টা ভালো মতো পড়তে হবে। আর ঢাবি না হলে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস ভাল করে জানতে হবে।

উপরের সব গুলো বিষয় ভালোমতো পড়লে আশা করি কমন পড়বে ইনশাল্লাহ। শুধু দরকার একটু সময় টাকে কাজে লাগানোর, একটু বেশী পরিশ্রম করার। ভাল থেকো।

এই পোস্টটি লিখেছেন:

হাবিবা খানম তুষিহাবিবা খানম তুষি
হাবিবা খানম তুষি

হাবিবা খানম তুষি এই ব্লগের একজন নিয়মিত লেখিকা।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরে বেড়ে উঠা “হাবিবা খানম তুষি” বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মিউজিক ডিপার্টমেন্ট এ পড়াশোনা করছেন। পড়াশোনার পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন বিষয়ে শিখতে ও লিথতে পছন্দ করেন।
তার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন তার ফেসবুক আইডিতে
PREVIOUS POST
This is the most recent post.
পুরাতন পোস্ট
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 টি মন্তব্য:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

এই পোস্টটির সম্পর্কে আপনার মতামত, প্রশ্ন অথবা কিছু জানতে বা জানাতে চাইলে অনুগ্রহ করে নিচে আপনার মন্তব্যটি লিখুন।
ধন্যবাদ।