Advertise with ShineMat.com at low cost.
সর্বশেষ আপডেট গুলো:

আসছে শীতকাল। জেনে রাখুন সেরা ১০ টি কার্যকরী টিপস।

শীত মানে মজার সময়। শীত নিয়ে আসে খেজুরের রস, পিঠা পুলি, ভ্রমনের ছুটিসহ আরো অনেক কিছু। আর এই অনেক কিছুর সাথে থাকে কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা ও। আজকের পোস্টটা মূলত কিভাবে শীতকালে সুস্থ্ থাকা যায় তাই নিয়েই।

আপনাদের জন্য আজ রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ১২ টি শীতকালীন টিপস যা অনুসরন করলে শীতের সময় আপনার স্বাস্থ্য অন্যদের তুলনায় বেশ অনেকটাই সুস্থ্ থাকবে।


শীতকালীন টিপস

০১: পানি খান একটু বেশী

শীতকাল মানেই পানির খাওয়ার প্রতি একটু অনিহা। এই সময়ে আমাদের শরীর রূক্ষ হয় বেশী আর তাই শরীরের সঠিক কার্যক্রম ও ত্বক স্বাভাবিক রাখতে স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশী পানি পান করুন।

০২: টেনশন কম করুন

জানি কেউ ইচ্ছা করে টেনশন করে না কিন্তু তারপর ও টেনশন আসেই বারবার। চেষ্টা করুন টেনশন না করার। টেনশন কমাতে কাজের ফাকে গেম খেলুন, বই পড়ুন অথবা একটু আড্ডা দিন। কর্ম শেষে পরিবারের সাথে সুন্দর সময় কাটান। দেখবেন শীতেও আপনাকে ফুরফুরা দেখাচ্ছে।

০৩: গ্রীণ টি পান করুন

শীতে গরম পানি আর চা তো খাবেনই, যদি সম্ভব হয় গ্রীণ টি পান করুন। পাশাপাশি যদি পারেন আদার চা, লেবুর চা অথবা যেকোন ভেষজ চা পান করতে পারেন।

০৪: পারতপক্ষে মিষ্টি জাতীয় খাবার খাবেন না

যতটা সম্ভব মিষ্টি জাতীয় খাবার খাবেন না। শুধু শীতকালের জন্যই না, এই ধরনের খাবারগুলো ধীরে ধীরে পরিপাকতন্ত্রের কার্যক্ষমতা কমিয়ে দেয়।

০৫: একটু হলেও ব্যায়াম করুন

সত্যি বলতে আমরা বাঙ্গালীরা একটু আলসে বটে। যারা নিয়মিত ব্যায়াম করেন তারাই শীতকালে ব্যায়াম কমিয়ে দেয় আর যারা একদম করেনই না তাদের কথা না হয় বাদ ই। যাই হোক শীতে একেবারে ফুরফুরে থাকতে চাইলে অন্তত ১৫ থেকে ২০ মিনিট হালকা ব্যায়াম করুন।

০৬: হাত পরিষ্কার রাখুন

শীতকালে আমাদের পানির প্রতি একটু আলসেমি থাকাটা স্বাভাবিক। তাই আলসেমি দূর করে সব সময় চেষ্টা করবেন হাত পরিষ্কার রাথতে। যদি পারেন একটা হ্যান্ড স্যনিটাইজার সাথে রাখতে পারেন। আর এখন তো ওয়াটার লেস হ্যান্ড ওয়াস ও বাজারে পাওয়া যায়।

০৭: নিয়মিত ফলমূল এবং সবজি খান

শীতে আমাদের দেশে প্রচুর সবজি এ ফল পাওয়া যায়। চেষ্টা করুন আঁশজাতীয় ফলমূল এবং সবজি খাবার খেতে। ফলমূল এবং সবজি আপনার দেহকে রাখবে ফিট এবং পরিষ্কার।

০৮: ঘুমের রুটিন ঠিক রাখুন

ঘুম আমাদের ক্লান্তি দূর করে আমাদের শরীরকে পর্যাপ্ত চার্যআপ করে তোলে। তাই প্রতিদিন প্রায় ৮-৯ ঘন্টা ঘুমান, হোক সেটা শীত কিংবা গরমকাল।

০৯: শরীরে নিয়মিত লোশন ও ত্রিম ব্যবহার করুন

শীতকালে আমাদের শরীরের ত্বক প্রায় সব সময়ই রুক্ষ ও খসখসে হয়ে থাকে আর তাই গোসল ও হাতমুখ ধোয়ার পর নিয়মিত লোশন, ত্রিম ও গ্লিসারিন ব্যবহার করতেই হবে।

১০: অন্যান্য কিছু জিনিষ যা না করলেই ভাল

* সকল ধরনের ডেইরি চকলেট খাওয়া।
* অ্যলকোহল ও ধূমপান করা।
* জোর করে ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করা।
* শীত সহ্য করে বাইরে হাটাচলা করা।
* অতিরিক্ত শারিরিক পরিশ্রম করা।

পোস্টটি ভাল লাগলে কমেন্ট করুন এবং শেয়ার করুন। আপনি চাইলে আপনার পছন্দের বিষয় আমাদের বলতে পারেন, আমরা চেষ্টা করব আপনার পছন্দের বিষয় নিয়ে লিখার জন্য। ভাল থাকবেন, খুশি থাকবেন।
PREVIOUS POST
This is the most recent post.
পুরাতন পোস্ট
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 টি মন্তব্য:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

এই পোস্টটির সম্পর্কে আপনার মতামত, প্রশ্ন অথবা কিছু জানতে বা জানাতে চাইলে অনুগ্রহ করে নিচে আপনার মন্তব্যটি লিখুন।
ধন্যবাদ।